পল্লীকবি জসীমউদ্দীন এর ৪৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ১৪ মার্চ

পল্লীকবি জসীমউদ্দীন এর ৪৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ ১৪ মার্চ…একুশে পদকপ্রাপ্ত পল্লীকবি জসীমউদ্দীন ১৯৭৬ সালের ১৪ মার্চ ৭৩ বছর বয়সে রাজধানী ঢাকায় মারা যান। ওই দিনই তাকে ফরিদপুর সদর উপজেলার অম্বিকাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের পৈত্রিক বাড়ির আঙিনায় প্রিয় ডালিম গাছের নিচে তাকে সমাহিত করা হয়।

পল্লী কবি জসীম উদ্দীন ছোট বেলা থেকেই কাব্য চর্চা শুরু করেন। ছাত্রজীবনে লেখা তার “কবর’ কবিতাটি পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভূক্ত হলে তিনি ব্যাপক পরিচিতি পেয়ে যান। “আসমানী” তাঁর একটি বিখ্যাত কবিতা।

এ উপলক্ষে কে কেন্দ্র করে  ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল ৮ টায় শহরের গোবিন্দ পুর এলাকার কবির পৈত্রিক নিবাশের আঙিনায় ডালিম গাছের নিচে কবির কবরে পুষ্প মাল্য অর্পণ করা হয়, আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে এর আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

পল্লী কবি জসীম উদ্দীনের রয়েছে শত কবিতা, গল্প, নাটক আর গানের মাধ্যমে পল্লী মানুষের সুখ-দুঃখের কথা তুলে ধরে যে কবি পেয়েছিলেন পল্লীকবির উপাধি। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটা “গাছের ছায়া লতায় পাতায় উদাসী বনের বায়” “কিংবা বাবু সেলাম বারে বার”.. “তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছি দুই নয়নের জলে” ” ওই খানে তোর দাদির কবর ডালিম গাছের তলে ” “তুমি যাবে ভাই যাবে মোর সাথে” “আমার নাম গয়া বাইদ্যা বাবু বাড়ি পদ্মার পাড়”  ইত্যাদি। 

আরও পড়ুনঃ অবসরে যাওয়ায় ফরিদপুরের পুলিশ সদস্য কে অন্যরকম উপহার প্রদান

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

1 Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar